আজ ৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ইজিবাইক চালক হত্যার আসামীসহ ৫ ছিনতাইকারী গ্রেফতার

জুবায়ের আহমেদ

নরসিংদীতে পৃথক পৃথক অভিযানে স্বপন মিয়া (৩৫) নামে চালককে হত্যা করে ইজিবাইক ছিনতাইয়ের ঘটনার দুই আসামীসহ ইজিবাইক ছিনতাইকারী চক্রের ৫ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার দুপুরে নরসিংদীর পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) সাহেব আলী পাঠান ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) মো. আল আমিন।

এর আগে রবিবার জেলার বিভিন্ন স্থানে পৃথক অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে থানা ও গোয়েন্দা শাখা পুলিশ।

চালক স্বপন মিয়া হত্যার ঘটনায় গ্রেফতারকৃত দুইজন হলো মনোহরদী থানার পূর্ব ডোমনমারা গ্রামের মৃত আ. রশিদের ছেলে নাঈম মিয়া (২২) ও পশ্চিম বীরগাঁও গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে মো. জাকির হোসেন (২৫)।

অপরদিকে গ্রেফতারকৃত ইজিবাইক ছিনতাইকারী চক্রের ৫ জন হলো- নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও থানার সাদিপুর গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে মো. আরিফ মিয়া (২৮), তাজুল ইসলামের ছেলে মো. মিম ইসলাম (২৬), লোকমান হোসেনের ছেলে মো. রুবেল মিয়া (৩০), কোনাবাড়ি গ্রামের ইউনুস আলীর ছেলে মো. রিপন মিয়া (৩৩) ও বন্দর থানার গুকলদাসের বাগ এলাকার মৃত আমির হামজার ছেলে আনোয়ার হোসেন (৩৮)।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানান, গত বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) সকালে মনোহরদীর পূর্ব ডোমনমারা গ্রামের একটি পুকুর থেকে স্বপন মিয়া নামে এক ইজিবাইক চালকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে আধুনিক তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় এই হত্যার ঘটনায় জড়িত নাঈম মিয়া ও জাকির হোসেনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তারা ইজিবাইক ছিনতাইয়ের জন্য চালক স্বপন মিয়াকে হত্যা করেছে বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানায়।

অপরদিকে গত ২১ জুলাই নরসিংদীর পলাশের ভাটপাড়ায় একটি ছিনতাইকারী চক্র ডিবি পরিচয়ে ইজিবাইক চালককে প্রাইভেটকারে উঠিয়ে কিছু দূর সামনে নিয়ে নামিয়ে দেয়। এই সুযোগে ওই চক্রের সদস্যরা চালকের রেখে যাওয়া ইজিবাইকটি নিয়ে পালিয়ে যায়। ঘটনাটির তদন্তে নামে জেলা গোয়েন্দা শাখা ও পলাশ থানা পুলিশ। পরে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ঘটনায় জড়িত ৫ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এরমধ্যে দুইজনের বিরুদ্ধে সোনারগাঁও থানায় ইজিবাইক চুরির মামলা রয়েছে। এসময় তাদের কাছ থেকে ৫টি ইজিবাইকসহ ছিনতাইয়ের কাজে ব্যবহৃত একটি প্রাইভেটকার জব্দ করে পুলিশ।

     এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ