আজ ৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

মনোহরদীতে গাঁজা সেবনে বাধা দেওয়ায় ইউপি সদস্যের বাড়ি ভাঙ্গচুর

খাসখবর প্রতিবেদক

নরসিংদীর মনোহরদীতে গাঁজা সেবনে বাধা দেওয়ায় এক ইউপি সদস্যের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙ্গচুর করেছে একদল বখাটে যুবক ও তাদের সঙ্গী-সাথীরা। গত শনিবার উপজেলার কাচিকাটা ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য জসিম উদ্দিনের বাড়িতে এই হামলার ঘটনা ঘটে। প্রায় অর্ধশতাধিক লোক হামলা চালিয়ে বাড়ির রান্নাঘর, গোয়ালঘর, একটি মোটরসাইকেল, বৈদ্যুতিক মিটার ও বসত ঘরের দরজা জানালা ভাঙ্গচুর করে। তবে এ ঘটনায় কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

ইউপি সদস্য জসিম উদ্দিন জানান, গত শুক্রবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে বাড়ী ফিরেন। এসময় তার বাড়ির সামনে রাস্তার পাশ হতে গাজা পোড়ার গন্ধ পান। তিনি বাড়ীর ভিতর তার মোটরসাইকেলটি রেখে বাড়ী সামনে তা দেখতে যান। তিনি সেখানে ৪ যুবককে গাজা সেবন করতে দেখেন। ইউপি সদস‍্য এগিয়ে তাদের বাড়ী কোথায় তা জানতে চায়। উত্তরে তারা পাশ্ববর্তী গ্রামের বলে জানায় ওই মাদক সেবকরা। এসময় জসিম উদ্দিনের সাথে মাদক সেবীদের কিছুটা বাকবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে তাদেরকে আটক করে থানায় খবর দিবে এবং অভিভাবকদের খবর দেবে বলে এক যুবককে আটক করলে বাকী ৩ পালিয়ে যায়।

পালিয়ে যাওয়া ৩ যুবক পর কিছুক্ষন পর প্রায় ৩০-৪০ জন লোক নিয়ে ইউপি সদস‍্যে বাড়ী এসে ভীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করে এবং আটককৃত যুবককে নিয়ে যায়।
এরপর দিন শনিবার সকালে প্রায় অর্ধশতাধিক লোকজন দেশীয় ধারালো অস্ত্র ও লাঠিসোঁটা নিয়ে ইউপি সদস‍্য জসিম উদ্দিনের বাড়িতে হামলা চালায়। এসময় জসিম উদ্দিন প্রাণভয়ে তার ঘরের ভিতরে আশ্রয় নেন। হামলাকারীদের তান্ডবে পুরো এলাকায় আতংকের সৃষ্টি হয়। হামলাকারীরা গোয়ালঘর, ইউপি সদস‍্যের মোটরসাইকেল, বৈদ্যুতিক মিটার ও বসত ঘরের দরজা জানালা ভাঙ্গচুর করে এবং যাওয়ার সময় রান্নাঘরে আগুন দেয়।

ইউপি সদস্য জসিম উদ্দিন বলেন, ঘটনার পর থেকে আমি আতংকের মধ্যে রয়েছি। এ ব্যাপারে তিনি থানায় অভিযোগ করেছে। তবে থানা পুলিশ এখন পর্যন্ত গ্রেফতার করেনি। তিনি এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও দৃষ্টান্তমুলক বিচার দাবী করেন।

এ ব‍্যাপারে মনোহরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আনিচুর রহমান সাথে কথা বলতে থানায় গেলে তাকে পাওয়া যায়নি। পরে মোবাইলে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, গাজা খাওয়ার অভিযোগে একটি ছেলেকে মেম্বার আটক করে। সে কারনে ওই ছেলের এলাকার লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে হামলার ঘটনা ঘটায় বলে অভিযোগ পেয়েছি। এই ঘটনার পর দুই পক্ষই পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করেছে। আমরা বিষয়টি সঠিক তদন্ত করে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

     এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ