আজ ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

নরসিংদীতে ২১’র গ্রেনেট হামলায় নিহতদের স্মরণে স্মরণসভা ও দোয়া

খাসখবর প্রতিবেদক

নরসিংদীতে ২১’ আগস্ট বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্বরণে এক স্মরণসভা, দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। নরসিংদী শহর আওয়ামী যুবলীগের উদ্যোগে আয়োজিত স্মরণসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নরসিংদী-সংসদীয় আসনের সাংসদ লে.কর্ণেল (অব.) মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম হিরু (বীরপ্রতিক)।

নরসিংদী শহর আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি দিদারুল হক বিপ্লবের সভাপতিত্বে স্মরণ সভায় প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত থেকে মূল্যবান বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রিয় যুবলীগের নির্বাহী সদস্য ব্যরিষ্টার তৌফিকুর রহমান।

স্মরণ সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন,বাংলাদেশ তাঁতীলীগের কেন্দ্রিয় কমিটির যুগ্ম সম্পাদক মুন্তাজ উদ্দিন ভূঁইয়া, আওয়ামী লীগ নেতা আমীরুল হক ভূঁইয়া, নরসিংদী সদর থানা আওয়ামী লীগের আহবায়ক আফতাব উদ্দিন ভূঁইয়া, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়ালিউর রহমান আজিম, শিল্প ও বানিজ্য বিষয়ক সম্পাদক সাখাওয়াৎ হোসেন মোল্লা, নরসিংদী সরকারী কলেজের সাবেক ভিপি মিয়া মোহাম্মদ মন্জু প্রমূখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে লে.কর্ণেল (অব.) মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম হিরু (বীরপ্রতিক)এমপি বলেন. ২০০৪ সালের ২১ শে আগস্ট বিএনপি-জামাত জোট সরকারের আমলে বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা শেখ হাসিনার সভাস্হলে গ্রেনেড হামলা চালানো হয়। ওই গ্রেনেট হামলায় সাবেক রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের স্ত্রী আইভি রহমানসহ ২৪ জন নেতা-কর্মী নিহত হয়। স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তিরা সেদিন চেয়েছিলো জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর মতন জননেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা করতে। কিন্তু আল্লাহর অশেষ রহমতে তিনি প্রানে বেঁচে যান। তিনি দেশের মানুষের নেতৃত্ব দিবেন এবং এ দেশকে উন্নয়নের পথে নিয়ে যাবেন বলেই হয়তো আল্লাহর কৃপায় প্রাণে বেঁচে যান। আজ তারই নেতৃত্বে বাংলাদেশ উন্নয়নশীল রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছেন। বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেল।

পরে বঙ্গবন্ধুসহ ৭৫’র ১৫ আগস্ট নিহতদের এবং ২১’র গ্রেনেট হামলায় শহীদের স্মরণে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

     এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ