আজ ৬ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২০শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

স্বাভাবিক প্রসবে ৩ সন্তানের জন্মদিলেন গৃহবধূ রুমা

জুবায়ের আহমেদ

নরসিংদীতে কোন রকম অস্ত্রোপচার ছাড়াই স্বাভাবিক প্রসবে এক সাথে ৩ কন্যা সন্তানের জন্ম দিয়েছেন প্রসূতি রুমা বেগম নামে এক গৃহবধূ। রবিবার (১৪ জানুয়ারি) নরসিংদী সদর হাসপাতালে বিকেল সাড়ে ৩টায় সিনিয়র স্টাফ নার্স নার্স রোকেয়া বেগম ও ইভা রানী বিশ্বাসের তত্বাবধানে রুমা তার তিন নবজাতক সন্তানের জন্ম দেন।

তিন নবজাতক কন্যা সন্তান বলে জানান প্রসবের তত্বাবধানে থাকা হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স রোকেয়া বেগম।

গৃহবধূ রুমা বেগম জেলার রায়পুরা উপজেলার পাড়াতলী এলাকার আলমগীর হোসেনের স্ত্রী। এইবার তিনি দ্বিতীয় বার শিশু জন্ম দিলেন। এর আগে তার সাত বছরের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে।

রোকেয়া বেগম জানায় রবিবার বেলা আড়াইটায় হাসপাতালের গাইনি বিভাগে রুমা বেগম নামে ওই প্রসূতি ভর্তি হয় পরে সাড়ে তিনটার দিকে আমার এবং হাসপাতালের ওপর সিনিয়র স্টাফ নার্স ইবা বিশ্বাসের তত্ত্বাবধানে ও আয়া সুফিয়া বেগমের সহায়তায় প্রসূতি রুমা স্বাভাবিক প্রসবের মধ্য দিয়ে একে একে তিন তিনটি কন্যা সন্তানের জন্ম দেয়। এই প্রসূতির স্বাভাবিক এই প্রসব কার্যক্রম সম্পূর্ণ করতে পেরে পরম করুনাময় কাছে লাখ লাখ শুকরিয়া জানাই।

তিনি জানান, প্রসবের পর প্রসূতি মা ও নবজাত কন্যা সন্তানরা সুস্থ ছিল। তবে নবজাতকদের ওজন স্বাভাবিকের চেয়ে কম থাকায় তাদেরকে একদিন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে রাখা হয়। সোমবার নবজাতক তিন কন্যা সন্তানকে সাথে নিয়ে বাড়ি ফিরেন রুমা বেগম।

নরসিংদী সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা ডা. আবুল বাসার বলেন, সকালেই তারা ছুটি নিয়ে চলে যেতে চেয়েছিল কিন্তু আমি তাদেরকে যেতে দেইনি। তিনটি শিশুর মধ্যে একটির ওজন অনেকটাই কম ছিল। তাই ওই শিশুটিকে জেলা হাসপাতালে স্ক্যানো (তাপ নিয়ন্ত্রণে রাখার কাঁচের বাক্স)’র পরামর্শ দিয়ে ছিলাম। সেজন্য আমি জেলা হাসপাতালের আরএমও কে ফোন করে বলে দিয়েছিলাম। তারা সেখানে গিয়েছে কিনা সেটা বলতে পারব না।

     এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ