আজ ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

রায়পুরা উপজেলা ও মির্জারচর ইউপিতে বিনা বাধায় বিজয়ের পথে

খাসখবব প্রতিবেদক

নরসিংদীর রায়পুরায় উপজেলা পরিষদ ও মির্জারচর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) উপনির্বাচনে উভয়টিতে নৌকার প্রার্থীর কোন প্রতিদ্বন্দ্বি না থাকায় বিনা বাধায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন।

সোমবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আজহারুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন সোমবার বিকেলে জেলা নির্বাচন ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ে উপজেলা পরিষদ উপনির্বাচনের চার স্বতন্ত্র প্রার্থী মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করে নেন। একক প্রার্থী থেকে যান লায়লা কানিজ লাকি।

এর আগে রোববার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন অন্য কোনো প্রার্থী না থাকায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় মাহফুজা আক্তার বিজয়ী হচ্ছেন বলে জানান রিটার্নিং কর্মকর্তা আজহারুল ইসলাম।

জানা যায়, গত বছরের ৩ ডিসেম্বর সন্ত্রাসীদের গুলিতে মির্জাচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাফর ইকবাল মানিক নিহত হন।

একই মাসের ১৩ ডিসেম্বর ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন তৎকালীন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস ছাদেক। পরে দুটি শূন্য পদে গত ২৩ জানুয়ারি উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা।

পরে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে আওয়ামী লীগের একাধিক প্রার্থী মনোনয়ন চাইলেও মনোনয়ন পান লায়লা কানিজ লাকি এবং ইউনিয়ন পরিষদ পর্যায়ে জাফর ইকবাল মানিকের স্ত্রী মাহফুজা আক্তার একক প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পান। পরে রোববার মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহারের শেষ দিনে মাহফুজা আক্তারের বিপক্ষে কোনো প্রার্থী না থাকায় উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা তাকে বিজয়ী ঘোষণা করেন। অন্যদিকে উপজেলা পরিষদ লায়লা কানিজ লাকিসহ মোট ছয়জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা দেন। পরে শাহ্আলম নামে একজন স্বতন্ত্র প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল হয়। জেলা ও উপজেলায় মোট চারজন স্বতন্ত্র প্রার্থী পরে ভোটের মাঠ থেকে সরে দাঁড়ালে নৌকার প্রার্থী লায়লা কানিজ লাকিকে মৌখিকভাবে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা আজহারুল ইসলাম বলেন, আপাতত উপজেলা পরিষদ উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত লায়লা কানিজ লাকি বিজয়ী। তবে উপজেলা পরিষদের উপনির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহ্ আলমের মনোনয়ন বাতিল হয়েছে। তিনি নাকি হাইকোর্টে গেছেন। যদি হাইকোর্টে আপিল করা হয়, তাহলে রায়ের পর এর সিদ্ধান্ত আসবে। এছাড়া মাহফুজা আক্তার মির্জারচর ইউনিয়ন পরিষদ উপনির্বাচনে একক প্রার্থী।

     এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ