আজ ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

প্রেম প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ফিল্মি কায়দায় স্কুলছাত্রীকে অপহরণ

খাসখবর প্রতিবেদক

নরসিংদীর রায়পুরায় দশম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে অপহরণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। একই এলাকার জীবন মিয়া (১৯) নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ উঠে। এই ঘটনায় সোমবার (২২ আগস্ট) সকালে অপহৃত ছাত্রীর বাবা আমির হোসেন রায়পুরা থানায় একটি অভিযোগ করেন।

এর আগে, রবিবার (২১ আগস্ট) বিকালে উপজেলার লোচনপুর এলাকায় স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে এই অপহরণের ঘটনা ঘটে।

অপহরণে অভিযুক্ত জীবন মিয়া উপজেলার অলিপুরা ইউনিয়নের স্বপন মিয়ার ছেলে। অপহৃত স্থানীয় এমএফ আইডিয়াল মডেল হাইস্কুলের ছাত্রী।

অপহৃত শিক্ষার্থীর সহপাঠী ও স্বজনরা জানায়, দশম শ্রেণির ওই ছাত্রী স্কুলে আসা যাওয়ার সময় প্রায়ই রাস্তা আটকিয়ে প্রেম প্রস্তাব দিয়ে তাকে উত্ত্যক্ত করতো একই এলাকার জীবন মিয়া। কিন্তু তার এ প্রস্তাবে রাজি ছিলনা ওই স্কুলছাত্রী। এই বিষয়ে জীবনের পরিবারের লোকজনদের একাধিকবার জানানো হলেও এর কোনো পদক্ষেপ নেয়নি তার পরিবার। গত রবিবার বিকেলে স্কুল থেকে সহপাঠীদের সাথে বাড়ি ফিরছিল ওই ছাত্রী । পথে রায়পুরা-বারৈচা সড়কের লোচনপুর এলাকায় একটি কুড়ার মিলের সামনে পৌঁছালে বখাটে জীবন ও তার চার সহযোগী ছাত্রীকে টেনে একটি সাদা রংয়ের প্রাইভেটকারে করে উঠিয়ে নিয়ে যায়। অপহণের একদিন অতিবাহিত হলেও তার কোন খোঁজ না পেয়ে অভিযুক্ত জীবনসহ অজ্ঞাত ৪ জনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেন অপহৃত শিক্ষার্থীর বাবা। এই ঘটনায় স্থানীয় শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়েছে।

এমএফ আইডিয়াল মডেল হাইস্কুলে প্রধান শিক্ষক বিপ্লব মিয়া বলেন, স্কুল থেকে প্রায় আধা কিলোমিটার দূরে অপহরনের ঘটনাটি ঘটেছে। ওই সময় শিক্ষার্থীর সাথে তার বান্ধবীরাও ছিল। বান্ধবীরা জানিয়েছে, জীবন নামে এক যুবক ওই শিক্ষার্থীকে একটি প্রাইভেট কারে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে গেছে। বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা শিক্ষা অফিসার ও থানাকে অবহিত করা হয়েছে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন বলেও জানান প্রধান শিক্ষক।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (রায়পুরা র্সাকেল) সত্যজিৎ কুমার ঘোষ বিষয়টির সত‍্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অপহরনের ঘটনায় অপহৃত শিক্ষার্থীর বাবা রায়পুরা থানা একটি অভিযোগ করেছেন। এই ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য অভিযুক্ত জীবন মিয়ার এক বন্ধুকে আটক করেছে পুলিশ। অপহৃত ছাত্রীকে উদ্ধারে ও অভিযুক্তদের গ্রেফতারে কাজ করছে পুলিশ।

     এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ