আজ ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

রায়পুরায় ছোটদের ঘুড়ি উড়ানোকে কেন্দ্র করে লাতির আঘাতে বৃদ্ধের মৃত্যূ

রায়পুরা প্রতিনিধি

নরসিংদীর রায়পুরায় নাতির ঘুড়ি উড়ানোকে প্রতিপক্ষের লাতির আঘাতে প্রান গেলো নানা হারুন খাঁন (৫৫) নামে এক বৃদ্ধের । ঘটনাটি ঘটেছে আজ (গতকাল) বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার দিকে রায়পুরা পৌর এলাকার তুলাতলী মহল্লায়। এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে কুলসুম ও আলাউদ্দিন নামে দুইজনকে আটক করেছেন রায়পুরা থানার পুলিশ।

নিহত হারুন খাঁন তুলাতলী মহল্লার মৃত মোঃ ছমির উদ্দিন খানের ছেলে। তার প্রতিবেশী প্রতিপক্ষ মোঃ জালাল উদ্দিনের লাথির আঘাতে তার মৃত্যু হয়েছে বলে হারুন খানের স্বজনদের অভিযোগ।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার বিকালে ঘুড়ি উড়ানোকে কেন্দ্র করে হারুন খানের মেয়ের ঘরের নাতি আলাদিন ও আলী সাথে ঝগড়ায় জড়িয়ে পড়ে প্রতিবেশী জালাল উদ্দিনের মেয়ের ঘরের নাতি আহাদ। এক পর্যায়ে আলাদিন ও আলী মিলে আহাদকে মারধর করে।এসময় আহাদের কান্নার শব্দ শুনতে পেয়ে তার নানি কুলসুম এবং নানা জালাল উদ্দিন এগিয়ে যায়। অন্যদিকে রাস্তায় শোরগোল শুনে হারুন খাঁনও ঘটনাস্থলে আসে। ছোটদের ঝগড়া বড়রিা জড়িয়ে পড়ে।তাদের মধ্যে কথাকাটির এক পর্যায়ে জালাল উদ্দিন হারুন খানের বুকে লাথি মারলে সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। এ সময় আশপাশের লোকজন তাকে নিকটস্থ রায়পুরা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে খবর পেয়ে রায়পুরা থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেন।

এব্যাপারে অভিযুক্ত জালালুদ্দিনের সাথে যোগাযোগের চেষ্ঠা করলে তাকে মোবাইলে পাওয়া যায়নি। পরে তার স্বজনরাজানান, হারুন খাঁনেকে লাথি দেয়ার মত কোন ঘটনা জালালুদ্দিনের সাথে ঘটেনি।

রায়পুরা থানার সেকেন্ড অফিসার এস আই দেব দুলাল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, অভিযোগের ভিত্তি থানায় মামলা নেয়া হবে। এঘটনায় ইতোমধ্যে পুলিশ দু’জনকে গ্রেফতার করেছে।

     এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ