আজ ৬ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২০শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

না ফেরার দেশে আব্দুল মতিন ভূঁইয়া

বিলাল হোসেন

 

পড়পাড়ে পাড়ি জমালেন নরসিংদী জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আব্দুল মতিন ভূঁইয়া। বৃহস্পতিবার (১৫ জুন) বেলা ৩টায় ঢাকাস্থ ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন) এর আগে বুধবার হৃদরোগ জনিত কারণে তাকে ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

 

মৃত‍্যূকালে জেলার এই প্রবীণ রাজনৈতিক ব‍্যক্তির বয়স হয়েছিল ৭৬ বছর। তিনি স্ত্রী, ১ ছেলে, ১ মেয়ে, আত্মীয়-স্বজনসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে যান।

 

মরহুমের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, বেশ কিছুদিন যাবৎ আব্দুল মতিন ভূঁইয়া হৃদ রোগে ভুগছিলেন। বুধবার (১৪ জুন) তিনি শারিরীক ভাবে অসুস্থ হয়ে পড়লে ঢাকাস্থ ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে বিশেজ্ঞ চিকিৎসকের অধীনে তিনি চিকিৎসাধীন ছিলেন। বৃহস্পতিবার চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নি:শ্বাস ত‍্যাগ করেন।

নরসিংদী জেলা আওয়ামী লীগের গ্রহণযোগ্য নেতৃবৃন্দের মধ্যে আব্দুল মতিন ভূঁইয়া একজন অন্যতম নেতা। তিনি নরসিংদী জেলা আওয়ামী লীগের পোস্টার হিসেবে অপরিচিত ছিলেন। তার ভাই প্রাক্তন সাংসদ মরহুম মোছলেহ উদ্দিন ভূঁইয়া ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি।

 

ঢাকা থেকে তার মরদেহ নরসিংদীতে আনার পর শুক্রবার বাদ জুমা দত্তপাড়ার ঐতিহাসিক ঈদগাহ ময়দানে নামাজে জানাজা শেষে পূর্বদত্তপাড়া কবরস্থানে দাফন করা হবে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

 

উল্লেখ‍্য আব্দুল মতিন ভূঁইয়া একাধারে নরসিংদী জেলা আওয়ামী লীগে সাধারণ সম্পদক এবং জেলা পরিষদের চেয়ারম‍্যানের দায়িত্ব পালন করেন। তিনি দুই মেয়াদে টানা ১৭ বছর নরসিংদী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৩ সালে প্রথম মেয়াদে তিনি নরসিংদী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। সে সময় সভাপতি ছিলেন প্রয়াত এড. আসাদোজ্জামান। তাদের এই কমি দীর্ঘ ১২ বছর দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ২০১৫ সালে ১৪ জানুয়ারি তিনি দ্বিতীয় মেয়াদে নরসিংদী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। সেসময় সভাপতি হন নরসিংদী-১ আসনের সাংসদ মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম হিরু (বীরপ্রতিক)। পরবর্তী সময়ে নরসিংদী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হিরু এবং সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মতিন ভূঁইয়ার মধ্যে তীব্র দ্বন্দ্ব দেখা দেয়। এই দ্বন্দ্বের মধ্যেই ২০২০ সালের নভেম্বর মাসে সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদককে অব্যাহতি দেয় কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ।

 

২০১৭ সালের ১ মার্চ নরসিংদী জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতীয় একক প্রার্থী হিসেবে আব্দুল মতিন ভূঁইয়া চেয়ারম‍্যান নির্বাচিত হন।

 

এদিকে তার মৃত্যুতে নরসিংদীর আওয়ামীলীগ পরিবারে নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

     এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ