আজ ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

নরসিংদীতে ১৬৩টি গৃহহীন পরিবার পাবে আপন ঠিকানা

মো: শাহাদাৎ হোসেন রাজু

‘বাংলাদেশের একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না’- মুজিববর্ষে উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর এই দৃঢ় অঙ্গীকার বাস্তবায়নে সারাদেশে ভূমি ও গৃহহীন পরিবারকে ভূমি ও গৃহ প্রদান কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

‘আশ্রয়ণের অধিকার, শেখ হাসিনার উপহার’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আগামী মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) সারাদেশে ৩য় পর্যায়ে ৩২ হাজার ৯০৪টি ভূমি ও গৃহহীন পরিবারের মধ্যে জমি ও গৃহ হস্তান্তর করবেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

৩য় পর্যায়ে নরসিংদীতে ১৬৩ টি ভূমি ও গৃহহীন পরিবার পাবে নিজের আপন ঠিকানা, নিজেদের নামে জমি ও নতুন ঘর। পরিবারগুলোর মাঝে জমি ও গৃহ হস্তান্তর কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন বিষয়ে অবহিতকরণ বিষয়ে এক সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন জেলা প্রশাসন। রবিবার (২৪ এপ্রিল) সকালে নরসিংদী জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এই সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

নরসিংদীর জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আবু নইম মোহাম্মদ মারুফ খান’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সাংবাদিক সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক উপসচিব ভূঞা মোহাম্মদ রেজাউর রহমান সিদ্দিকি, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) এ এস এম ইবনুল হাসান ইভেন, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্টেট মোহাম্মদ মাসুম, বিভিন্ন উপজেলার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাগণ, সিনিয়র সহকারী কমিশনার শ্যামল চন্দ্র বসাক, সদর এসিল্যান্ড মোঃ আমিনুল ইসলাম প্রমূখ।

সংবাদ সম্মেলনে নরসিংদী প্রেসক্লাব সভাপতি হাবিবুর রহমান হাবিব, সাধারণ সম্পাদক মোঃ হুমায়ূন কবির শাহ্ সহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক আবু নইম মোহাম্মদ মারুফ খান বলেন- সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সোনার বাংলা গড়া যে স্বপ্ন দেখেছিলেন তা আজ বাস্তবায়িত হচ্ছে তারই সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে। বঙ্গবন্ধু বাংলার প্রতিটি মানুষের খাদ্য, শিক্ষা, চিকিৎসা, বাসস্থানসহ সকল মৌলিক অধিকার নিশ্চিতকরণ ও তাঁদের উন্নত জীবনের অধিকারী করে গড়ে তোলার স্বপ্ন দেখেছিলেন । পিতার পদাঙ্ক অনুসরণ করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পিছিয়ে পড়া ক্ষুধা, দারিদ্র, আশ্রয়হীনতা, ও অজ্ঞতার শৃঙ্খল থেকে মুক্ত করে তাঁদের ক্ষমতায়ন নিশ্চিতকরণের প্রতি গুরুত্বারোপ করেছেন।

মুজিববর্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অঙ্গীকার ছিল ‘বাংলাদেশের একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না।’ প্রধানমন্ত্রীর সেই অঙ্গীকার সফল বাস্তবায়নের ভূমি ও গৃহহীন পরিবারকে ভূমি ও গৃহ প্রদান কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

তিনি বলেন, নরসিংদীতে ঘর ও জমি দেওয়ার জন্য আমরা যাদের নির্বাচন করেছি, কোন বাড়িঘর ছিল না। তাদের কোন ঠিকানা ছিল না। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তাদের ঠিকানা দিচ্ছে।শুধু ঠিকানা পাওয়াই নয়, তাদের জীবনটাই বদলে গেছে। যারা ঘর পাচ্ছেন, তারা নতুন জীবনে পদার্পণ করছে। বাংলাদেশের মানুষজন অর্থনৈতিক মুক্তি না পাওয়া পর্যন্ত, সরকারের এই প্রকল্প চলমান থাকবে। আমরা প্রত্যাশা করছি – খুব দ্রুতই নরসিংদী জেলাকে গৃহহীন ও ভূমিহীনমুক্ত জেলা ঘোষণা করবো।

তৃতীয় পর্যায়ে নরসিংদী৷ জেলার ৬টি উপজেলায় ১৬৩টি ঘরের মধ্যে নরসিংদী সদরে ১০টি,পলাশ উপজেলায় ২১টি, শিবপুর উপজেলায় ৪২টি, বেলাব উপজেলায় ৫১টি, মনোহরদী উপজেলায় ১৯ টি এবং রায়পুরা উপজেলায় ২০ টি ঘর প্রদান করা হবে।

তিনি বলেন, গৃহ নির্মাণ কাজ ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। সকল ঘরে বিনামূল্যে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল ১১টায় ভিডিও কন্ফারেন্সের মাধ্যমে সারা দেশব্যাপী একযোগে ৩য় পর্যায়ের ভূমি ও গৃহপ্রদান কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করবেন। এদিন দেশব্যাপী ৩২ হাজার ৯০৪ জন উপকারভোগীর নিকট ভূমি ও গৃহ হস্তান্তর করা হবে।

     এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ