আজ ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

নরসিংদীতে প্রাইভেটকারে পৃথক দুটি ছিনতাইয়ের ঘটনায় ৪ জন গ্রেফতার

মাজারুল ইসলাম রাসেল

নরসিংদীতে একটি সঙ্গবদ্ধ ছিনতাইকারী চক্রের ৪ (চার) সদস্যকে গ্রেফতার করেছে জেলা পুলিশ। ব্যাংকার ও ডাক্তারকে যাত্রীবেশে প্রাইভেট কারে তুলে পৃথক দুটি ছিনতাই এর ঘটনায় রবিবার (১৬ অক্টোবর) জিএমপি গাজীপুরের গাছা থানাধীন গাছা পূর্বপাড়া এলাকা থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

সোমবার (১৭ অক্টোবর) নরসিংদী পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) মো.আল আমিন মিয়া এই তথ্য জানান।

গ্রেফতারকৃতরা হলো, বরগুনার আমতলী থানা দিন বলইবুনিয়া (বুইচাখালি) গ্রামের মাজেদ মৃধার ছেলে মো. নজরুল মৃধা (৩৩)। সে বর্তমানে গাজীপুরের গাছা এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করে। দিনাজপুরের চিরিরবন্দর থানাধীন দক্ষিন নগর (বিন্যাকরী) গ্রামের সৈয়দ আলীর ছেলে মো. আ. রাজ্জাক (২৪)। সেও একই এলাকায় ভাড়া থাকে। ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া থানাধীন রাধাকানাই গ্রামের আব্দুল বারেক মিয়ার ছেলে মো. তারেক মিয়া (২১)। সে বর্তমানে গাজীপুরের চান্দনা চৌরাস্তার কৃষি গবেষনা ২ নং গেট এলাকায় বসবাস করে এবং দিনাজপুরের চিরিরবন্দর থানা দিন রানীপুর গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে রফিকুল ইসলাম (২২)। সে বর্তমানে আশুলিয়ার ভলিবদ্র গ্রামে থাকে।

সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানায়, গত ১০ সেপ্টেম্বর পূবালী ব্যাংক কর্মকর্তা আল মামুন ঢাকা যাওয়ার উদ্দেশ্যে ভৈরবের দুর্জয় মোড় হতে রাত সাড়ে নয়টার দিকে একটি প্রাইভেট কারে উঠে। ওই সময় প্রাইভেট কারে চালকসহ যাত্রীবেশে আরো ৪ জন বসা ছিলেন। প্রাইভেটকারটি ভৈরব ছেড়ে আসার কিছু দূর পর মাঝে বসে একজন বমি করবে বলে আল মামুনকে সাইট থেকে সরে এসে মাঝে বসার জন্য অনুরোধ করে। সে তার জায়গা থেকে সরে আসার কিছু সময় পর যাত্রীবেশে প্রাইভেটকারে থাকা ছিনতাইকারীরা তার হাত-পা, চোখ বেঁধে ফেলে এবং তাকে হত্যার ভয় দেখিয়ে মানিব্যাগ, একটি নোকিয়া মোবাইল ফোন ও পূবালী ব্যাংকের এটিএম কার্ড ছিনিয়ে নেয়। এই সময় তাকে ভয় দেখিয়ে তার কাছ থেকে এটিএম কার্ডের পিন নাম্বার নিয়ে নেয় ছিনতাইকারীরা। রাত সোয়া ১২টার দিকে ঢাকা সিলেট মহাসড়কের শেখারচর বাবুরহাট এলাকায় হাত-পা ও মুখ বাধা অবস্থায় তাকে ফেলে ছিনতাইকারীর চলে। পরবর্তীতে ছিনতাইকাররা তার এটিএম কার্ড ব্যবহার ব্যাংক একাউন্ট থেকে এক লাখ ৯১ হাজার টাকা উঠিয়ে নেয়। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী আল মামুন গত ১৯ সেপ্টেম্বর নরসিংদী সদর মডেল থানায় ৩৯২ ধারায় একটি মামলা দায়ের করেন।

একইভাবে নরসিংদী জেলা ভেটেনারী হাসপাতালে কর্মরত ডাঃ হেলাল আহমদ পারিবারিক কাজে ব্রাহ্মণবাড়িয়া যাওয়ার জন্য গত ৭ অক্টোবর রাত পৌনে ৮টার দিকে নরসিংদীর ইটাখোলা বাসস্ট্যান্ড থেকে একটি প্রাইভেটকারে উঠে বসে। এ সময় প্রাইভেটকারটিতে ড্রাইভার সহ মোট ৪ জন যাত্রীবেশে বসা ছিল। প্রাইভেটকারটি কিছুদূর যাওয়ার পর যাত্রীবেশে বসা একজন বমি করার ভান করে সাইট থেকে সরে ডা. হেলাল কে মাঝে এসে বসার অনুরোধ জানালে তিনি তার জায়গা ছেড়ে মাঝে গিয়ে বসেন। কিছুক্ষণ পর যাত্রীবেশে প্রাইভেট কারে থাকা ছিনতাইকারীরা তার হাত-পা ও মুখ বেঁধে তার সাথে থাকা নগদ ৬ হাজার টাকা, একটি ফাইভ-এস আই ফোন মোবাইল এবং ডাচ-বাংলা ব্যাংক লিঃ এর এটিএম কার্ড ছিনিয়ে নিয়ে একটি এটিএম বুথ থেকে এক লাখ টাকা উত্তোলন করে নেয়। পরের রাত সাড়ে ১১ টার দিকে তাকে হাত-পা মুখ বাধা অবস্থায় ঢাকা সিলেট মহাসড়কের নারায়নপুর এলাকায় ফেলে দেয়। এই ঘটনায় ভুক্তভোগী ডা. হেলাল গত (১৬ অক্টোবর) শিবপুর মডেল থানায় ৩৯৪ ধারায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এদিকে এক মাসের মধ্যে জেলার পৃথক দুটি থানায় একই কায়দায় ছিনতাইয়ের ঘটনায় দুটি মামলা দায়েরের হওয়ার বিষয়টি নরসিংদী জেলা পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজিম পিপিএম এর নজরে আসে। তিনি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসপি) মো. আল আমিন মিয়াকে মামলা দুটি তদন্তের দায়িত্ব দেন। পরবর্তীতে পুলিশ সুপারের দিকনির্দেশনা ও সরাসরি তত্ত্বাবধানে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ আল আমিন জেলা গোয়েন্দা শাখার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল বাশারসহ কয়েকজন উপ পুলিশ পরিদর্শক সহ প্রায় ৪৮টি সিসি ক্যামেরা ফুটেজ পর্যবেক্ষনসহ তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় আসামীদের সনাক্ত করে। পরে বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করে জিএমপি গাজীপুরের গাছা থানাধীন গাছা পূর্বপাড়া এলাকা থেকে সংঘবদ্ধ ছিনতাইকারী দলের ৪ সদস্যকে গ্রেফতার করেন। এসময় তাদের কাছ থেকে ছিনতাইয়ের কাজে ব্যবহৃত প্রাইভেটকার ও ছিনতাইকৃত ৭০ হাজার টাকা দুটি ছোরা একটি কসস্টেপ রোল ও একটি গামছা উদ্ধার করে।

উল্লেখ্য ছিনতাইয়ের প্রথম ঘটনায় জড়িত পলাতক আসামী মো:জুয়েল হাওলাদার অন্য একটি ছিনতায়ের ঘটনায় ময়মনসিংহের কোতয়ালী থানায় গ্রেফতার হয়ে বর্তমানে জেল হাজতে আছে। তার নামে বিভিন্ন থানায় চুরি, ডাকাতি, ছিনতায়ের ৪ টি মামলা রয়েছে। আসামী জুয়েল হাওলাদারকে অত্র মামলায় শীগ্রই শোন এ্যারেস্ট দেখানো হবে।

গ্রেফতারকৃত আসামী নজরুলের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় চুরি, ডাকাতি, ছিনতাই ও নারী নির্যাতনের অভিযোগে ৪টি মামলা ও আসামী রাজ্জাকের বিরুদ্ধে ১টি মামলা রয়েছে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

     এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ