আজ ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

জাতির জনকের স্মৃতি বিজড়িত স্থানগুলোতে ভাষ্কর্য নির্মাণ হচ্ছে, প্রধানমন্ত্রী

খাসখবর প্রতিবেদক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশের যেসব স্থানে জাতির জনকের বিশেষ স্মৃতি বিজড়িত ওই সব স্থান ঘটনার তাৎপর্য, ঐতিহাসিক গুরুত্ব বিবেচনায় বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিস্বরূপ সংরক্ষণ করা হচ্ছে। বর্তমান তরুণ ও ভবিষ্যৎ প্রজন্ম বঙ্গবন্ধুর জীবন ও আদর্শ সম্পর্কে অবহিত হতে পারে। সেকারণে ওই সব স্মৃতি বিজড়িত স্থানগুলো সংরক্ষিত করে বিভিন্ন ভাষ্কর্য নির্মাণ করা হচ্ছে।

বুধবার (১৬ জুন) জাতীয় সংসদে লক্ষ্মীপুর-২ আসনের আনোয়ার হোসেনের প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশের যেসব স্থানে অবস্থান করে স্বাধীনতা সংগ্রাম ও বিভিন্ন আন্দোলনের নেতৃত্ব দিয়েছেন, ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য সেসব স্থান বিশেষভাবে সংরক্ষণের জন্য বর্তমান সরকার বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণের স্মরণে ভাস্কর্য নির্মাণ করা হবে। ইতিমধ্যে ১৫০ ফুট উঁচু গ্লাস টাওয়ার নির্মাণ করা হয়েছে। যশোরের রাজগঞ্জ বাজারে ও ফরিদপুরের আম্বিকা ময়দানে বঙ্গবন্ধু স্মৃতিসৌধ নির্মাণ করা হবে। ঢাকার মিন্টো রোড ও আব্দুল গণি রোডের ভবনগুলোতে বঙ্গবন্ধুর অবস্থান ছিল, বিধায় সেগুলো সংরক্ষণের বিষয়ে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

শহীদুজ্জামান সরকারের এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, গণমাধ্যমের স্বাধীনতা দিয়ে দেশে প্রকাশিত পত্রিকার সংখ্যা তিন হাজার ২২২টি। এছাড়া সরকার বেসরকারি খাতে ৪৫টি টেলিভিশন, ২৭টি এফএম রেডিও এবং ৩১টি কমিউনিটি রেডিও চ্যানেলের অনুমতি দিয়েছে। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ উৎক্ষেপণের ফলে গণমাধ্যম অঙ্গন শক্তিশালী হয়েছে।

     এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ