আজ ৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

এলাকায় আধিপত্য বিস্তারে ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম

খাসখবর প্রতিবেদক

নরসিংদীতে এলাকায় নিজেদের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র মনির হোসেন নামে এক ব্যবসায়ীর উপর হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত জখম করেছে। রবিবার (২ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় নরসিংদীর উপজেলার পাঁচদোনা ইউনিয়নের ভাটপাড়া বাজারে এই হামলার ঘটনা ঘটে।

আহত মনির হোসেন ভাটপাড়া (বধু বাড়ী) গ্রামের মুসলে উদ্দিন মসু মিয়ার ছেলে। সে ভাটপাড়া বাজারে ইলেক্ট্রনিকস সামগ্রীর ব্যবসা করে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, মনির হোসেন ভাটপাড়া বাজারে ব্যবসা করার সুবাদে বাজারে শান্তি-শৃংখলা রক্ষায় এবং নিরাপত্তার জন্য রাতে পাহাড়ার ব্যবস্থা জোড়দার করে। এতে একটি মহলের জন্য তা সমস্যার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। ফলে বাজারে নিজেদের আধিপত্য বিস্তার করতে তাদের পথের কাঁটা মনির হোসেনকে সরিয়ে দেওয়ার পরিকল্পনায় রবিবার সন্ধ্যায় ভাটপাড়া এলাকার টেংগারটেক মহল্লার সুলমান মিয়ার (মেম্বার) ছেলে বাছেদ ও তার ছেলে রায়হান ও ফাইম এবং ভাতিজা ইলিয়াছ, মোজাম্মেলসহ দা- ছুরি, লোহার রডসহ বিভিন্ন দেশিয় অস্ত্র-সস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ভাটবাপাড়া বাজারে এসে মনির হোসেনের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এসময় তারে কিল-ঘুসিসহ লোহার রড দিয়ে বেধর পেটাতে থাকে এক পর্যায়ে তার মাথায় আঘাত করলে সে আহত হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। এসময় আশপাশে লোকজন এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা দ্রুত ঘটনা স্থল ত্যাগ করে।

পরে বাজারের তার পাশ্ববর্তী দোকানিরা তাকে উদ্ধার করে নরসিংদী সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। বর্তমানে সে চিকিৎসাধী রয়েছে।

মনির হোসেনের চাচী হেনা বেগম বলেন, আমার ছেলে(ভাতিজা) কে বিনা কারণে সন্ত্রাসীরা মারধোর করেছে। আমি এর উপযুক্ত বিচার দাবী করছি।

এব্যাপারে পাচঁদোনা ইউপি সদস্য মো: গিয়াস উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ভাটপাড়া বাজারের বিভিন্ন কর্মকান্ডে মনির নেতৃত্ব দিত। আর এ বিষয়টি হামলাকারীরা মেনে নিতে না পেরেই তাকে প্রাণে মেরে ফেলার জন্যই হামলা চালায়। হামলাকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

     এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ